a
Sorry, no posts matched your criteria.
My Bookmarks
  • No bookmark found
Image Alt
 • চুলের যত্ন  • কোকো কালচার: আপনার দৈনন্দিন সৌন্দর্যে নারকেল অন্তর্ভুক্ত করার জন্য হ্যাকস
coconut oil beauty hacks

কোকো কালচার: আপনার দৈনন্দিন সৌন্দর্যে নারকেল অন্তর্ভুক্ত করার জন্য হ্যাকস

Bookmark CFL(0)
  • প্রাত্যহিক জীবনে নারিকেলের রয়েছে বিবিধ ব্যবহার
  • নারিকেল তেল ময়েশ্চারাইজার হিসেবে খুবই ভালো কাজ করে
  • নারিকেল তেল ঠোঁট ফাটা বা ক্ষত সহজেই সারিয়ে তুলতে পারে

প্রাত্যহিক জীবনে নারিকেলের রয়েছে বিবিধ ব্যবহার। বলা চলে প্রকৃতির আশীর্বাদ। এটি ফল হিসেবে খাওয়ার পাশাপাশি চুল ও ত্বক পরিচর্যার কাজে ব্যবহার করা যায়। এছাড়া কার্বোনেটযুক্ত পানীয়ের বিকল্প হিসেবেও নারিকেলের পানির দারুণ ব্যবহার রয়েছে। দিনে দিনে এর উপকারিতা যত আবিষ্কার হচ্ছে, এর জনপ্রিয়তা ও ব্যবহারও তত বেড়েই চলেছে। নারিকেল তেল সম্পৃক্ত চর্বি সমৃদ্ধ। আর নারিকেল দুধে রয়েছে ম্যাগনেসিয়াম, ম্যাঙ্গানিজ ও পটাসিয়াম জাতীয় খনিজ যা পুষ্টির মাধ্যম হিসেবে কাজ করে। তাই নিত্যদিনের জীবনে এখন নারিকেলের ব্যবহার ও প্রয়োগ বেড়ে চলেছে। এই বেড়ে চলা বিভিন্ন নতুন প্রয়োগকে আমরা বলতে পারি “কোকো কালচার”।

চুলের যত্নে নারিকেল তেল যুগ যুগ ধরে ব্যবহার হয়ে আসছে। চুল পড়া রোধ করতে ও ক্ষতিগ্রস্ত চুলকে ভিতর থেকে মেরামত করতে নারিকেল তেল সেরা। নারিকেলে তেলে বিদ্যমান খনিজ পদার্থগুলোই চুলে পুষ্টি যোগায়। এছাড়া নারিকেল তেল চুলের শুষ্কতা রোধ করে, খুশকি সমস্যা দূর করে, চুলে প্রাকৃতিকভাবে কন্ডিশনিং করে এবং আগা ফেটে যাওয়া রোধ করে। নারিকেল তেল মাথার ত্বকেও প্রয়োজনীয় পুষ্টি যোগায়। নিয়মিত নারিকেল তেল মাথার ত্বকে ও চুলে মাসাজ করলে চুল ও মাথার ত্বকে পুষ্টি বজায় থাকে। নারিকেল তেল মাসাজের অনেক উপকারিতাই রয়েছে। যেমন, এটি তাৎক্ষণিকভাবে মাথার ত্বকের শুষ্কতা দূর করে। আর সারা রাত নারিকেল তেল মাথায় দিয়ে রাখলে চুল প্রাকৃতিকভাবে কন্ডিশনিং হয়ে যায়। তাই শ্যাম্পু করার আগের রাতে নারিকেল তেল মাথায় মাসাজ করতে পারেন। নারিকেল তেল সবচেয়ে ভালো কাজ করে যখন এটি সামান্য গরম করে নিয়ে মাথায় মাসাজ করা হয়। এতে চুল হয়ে ওঠে সজীব ও প্রাণবন্ত।

চুল পরিচর্যার সাথে সাথে নারিকেল তেল কিন্তু ত্বক পরিচর্যার ক্ষেত্রেও বেশ উপকারি। ত্বকের যত্নে ময়েশ্চারাইজিং অন্যতম জরুরি ধাপ। নারিকেল তেল ময়েশ্চারাইজার হিসেবে খুবই ভালো কাজ করে। অনেকেই নারিকেল তেলকে ময়েশ্চারাইজার হিসেবে ব্যবহার করেন। বিশেষ করে শুষ্ক ত্বকে নারিকেল তেল ময়েশ্চারাইজা রহিসেবে দারুণ কার্যকর। সূর্যের ক্ষতিকর রশ্মি, বাইরের ধুলা-বালি, দূষণ ইত্যাদি কারণেই ত্বক প্রয়োজনীয় আর্দ্রতা হারায়। তাই রাতে ঘুমাতে যাওয়ার আগে নারিকেল তেল ত্বকে ব্যবহার করলে পরের দিন সকালে আপনার ত্বক আর্দ্র ও কোমল থাকবে।

নারিকেল তেল যে শুধু ময়েশ্চারাইজার হিসেবেই কাজ করে তা কিন্তু নয়। আপনার প্রতিদিনের স্কিনকেয়ার রুটিনে সানস্ক্রিন হিসেবেও চমৎকার কাজ করতে পারে। এটি ত্বকে আলাদা একটি স্তর তৈরি করে যা ত্বককে সূর্যের ক্ষতিকর অতিবেগুনি রশ্মি থেকে সুরক্ষা দেয়। বিশ্বজুড়ে অনেক নারীই এখন নারিকেল তেলকে সানস্ক্রিন হিসেবে ব্যবহার করছেন। যারা ব্যয়বহুল সানস্ক্রিন লোশন ব্যবহার করতে চান না, নারিকেল তেল তাদের জন্য দারুণ একটু বিকল্প সানস্ক্রিন হতে পারে। মেক-আপ শুরুর আগে অল্প পরিমাণ নারিকেল তেল মুখে ভালোভাবে মাসাজ করে নিলেই এটি ত্বক দ্রুত শুষে নিয়ে সুরক্ষা দেবে।

নারিকেল তেলের আরেকটি চমৎকার ব্যবহার হল মেক-আপ রিমুভার হিসেবে। নারিকেল তেল মেক-আপ খুব চমৎকারভাবে তুলে ফেলতে সাহায্য করে। আর এটি ব্যবহারে ত্বকে কোনো ক্ষতিও হয়না। ব্যয়বহুল মেক-আপ রিমুভার না কিনে তাই প্রাকৃতিক উপায়েই নারিকেল তেল দিয়ে মেক-আপ রিমুভারের কাজ সেরে ফেলা যায়। এছাড়া নারিকেল তেল ত্বককে ময়েশ্চার যোগ করে বলে মেক-আপ রিমুভ এর পরেও ত্বক আর্দ্র থাকে। আর এটি খুব দ্রুত মেক-আপ তুলে ফেলতে সাহায্য করে। সারাদিন লম্বা সময় মেক-আপ করে থাকার পর অল্প পরিমাণ নারিকেল তেল মুখে দিয়ে টিস্যু পেপারের সাথে মুছে ফেলুন। এরপর কুসুম গরম পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন।

ময়েশ্চারাইজার বা মেক-আপ রিমুভারের পাশাপাশি নারিকেল তেল লিপ বাম হিসেবেও ব্যবহার করা যায়। ঠোঁটে আর্দ্রতার অভাব হলেই ফেটে গিয়ে রক্ত বের হয়, তাই ঠোঁটের জন্য চাই বিশেষ যত্ন। নারিকেল তেল ঠোঁট ফাটা বা ক্ষত সহজেই সারিয়ে তুলতে পারে। নিয়মিত নারিকেল তেল লিপ বাম হিসেবে ব্যবহার করলে ঠোঁট হয়ে ওঠে নরম ও কোমল। প্রতিদিন সকালে ঘুম থেকে ওঠার পর এবং রাতে ঘুমাতে যাওয়ার আগে নারিকেল তেল ঠোঁটে মাখলে সবচেয়ে ভালো ফল পাওয়া যায়। অনেকেই নারিকেল তেলের সাথে চিনি মিশিয়ে স্ক্রাব তৈরি করে সকালে ব্যবহার করেন।

নারিকেল তেল চুল ও ত্বকের যত্নে বিভিন্নভাবে ব্যবহার করা যায়। ত্বকে নারিকেল তেল ময়েশ্চারাইজার, সানস্ক্রিন, মেক-আপ রিমুভার বা লিপ বাম যে কোনোভাবেই ব্যবহার করা যায়। এছাড়া চুলের যত্নে মাথার ত্বকে নারিকেল তেল মাসাজ করলেও দারুণ উপকার পাওয়া যায়। বিশ্বজুড়ে অনেকেই এখন ত্বক ও চুলের যত্নে নারিকেল ব্যবহার করছেন এবং এই বিষয়টিকেই আমরা “কোকো কালচার” হিসেবে আখ্যায়িত করছি। নারিকেলের আরো নতুন নতুন ব্যবহার, উপকারিতা হয়তো ভবিষ্যতে আবিষ্কার হবে। বিভিন্ন গবেষণা ও পরীক্ষা-নিরীক্ষা থেকে নারিকেল তেলের বৈশিষ্ট্য ও উপকারিতা একদম স্পষ্ট, ব্যবহার করেই দেখুন।

সাধারণ প্রশ্ন: 

১। মুখের ত্বকে নারিকেল তেল কি ব্যবহার করা উচিত?

নারিকেল তেলে যে খনিজ পদার্থ রয়েছে তা ত্বকে পুষ্টি যোগা ও ত্বককে করে তোলে প্রাণবন্ত।

২। স্কিন কেয়ার রুটিনে নারিকেল তেল কীভাবে ব্যবহার করবো?

সকালে বা রাতে অন্য কোনো উপাদানের সাথে বা শুহদু নারিকেল তেলই ত্বকে স্কিন কেয়ার রুটিন হিসেবে ব্যবহার করতে পারেন।

৩। নারিকেল তেল ব্যবহারে ত্বকে উপকার পাওয়া যাবে?

নারিকেল তেল ত্বকের অ্যাকনে আর ব্রণ দূর করতে সাহায্য করে তাই এটি ব্যবহারে ত্বকে উপকার পাওয়া যায়।

৪। ত্বকে কি প্রতিদিন নারিকেল তেল ব্যবহার করা যাবে?

কোনো রকম পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া ছাড়াই নারিকেল তেল প্রতিদিন ত্বকে ব্যবহার করা যাবে।

Reference:

https://wellnessmama.com/5734/coconut-oil/

https://agelessbyglynisbarber.com/diet/the-versatility-of-coconut/

https://www.mayoclinichealthsystem.org/hometown-health/speaking-of-health/myth-or-fact-coconut-is-an-effective-sunscreen

https://www.news18.com/news/indiwo/wellness-reasons-to-start-putting-coconut-oil-on-your-face-and-skin-1510369.html#:~:text=%2A%20Mix%20honey%20and%20coconut%20oil%20in%20equal,and%20the%20oil%20will%20leave%20the%20skin%20moisturised.
https://www.mayoclinichealthsystem.org/hometown-health/speaking-of-health/myth-or-fact-coconut-is-an-effective-sunscreen

https://agelessbyglynisbarber.com/diet/the-versatility-of-coconut/

https://wellnessmama.com/5734/coconut-oil/

 

POST A COMMENT