a
Sorry, no posts matched your criteria.
My Bookmarks
  • No bookmark found
Image Alt
 • চুলের যত্ন  • স্বাস্থ্যকর ও খুশকিমুক্ত স্কাল্প পেতে নারিকেল তেল

স্বাস্থ্যকর ও খুশকিমুক্ত স্কাল্প পেতে নারিকেল তেল

Bookmark CFL(0)
  • চুলের খুশকি দূর করার জন্য নারিকেল তেল একটি বিশেষ কার্যকরী উপাদান।
  • মাথার ত্বকের শুষ্কতা ও চুলকানি প্রতিরোধে নারিকেল তেল খুব ভালো কাজ করে।
  • নারিকেল তেল চুলের আদ্রতা ফিরিয়ে আনতে সাহায্য করে।
  • মাথার ত্বক থেকে ভাইরাস এবং ব্যাকটেরিয়া ধ্বংস করে।

উপকারিতা

খুশকি প্রতিরোধ করে

নারিকেল তেল কেবল রান্নার কাজেই ব্যবহৃত হয় না। বরং আপনার মাথার ত্বক এবং চুলের জন্য এর ব্যবহারে রয়েছে হাজারো রকমের উপকারিতা। চুলের খুশকি দূর করতে এটি খুবই উপকারী। হাজার বছর ধরে খুশকি দূর করায় নারিকেল তেল একটি প্রাকৃতিক উপাদান হিসেবে ব্যবহার হয়ে আসছে। নারিকেল তেলে এমন কিছু অনন্য পুষ্টির সংমিশ্রণ রয়েছে যা শুধু মাত্র খুশি নির্মূলই করেনা বরং খুশকি তৈরী হবার প্রক্রিয়াকেও সমূলে ধ্বংস করে।

মাথার ত্বকের স্বাস্থ্য উন্নত করে

  • মাথার ত্বকের শুষ্কতা ও চুলকানি প্রতিরোধে নারিকেল তেল খুব ভালো কাজ করে। এটি ব্যবহারে মাথার ত্বক আর্দ্রতা ফিরে পায়, লাল লাল ভাব ও জ্বালাপোড়া কমে যায়।
  • নারিকেল তেল খুশকি সহ মাথার ত্বকের অন্যান্য সমস্যার সমাধান করে। এর এন্টিব্যাকটেরিয়াল গুণ চুলের ফলিকের একটি সাধারণ সংক্রমণ যা ফলিকুলাইটিস নামে পরিচিত, তা দূর করে।
  • নারিকেল তেল মাথার ত্বকে ছত্রাক সংক্রমণের বিরুদ্ধেও লড়াই করতে পারে।
  • প্রতিদিন চুল ধোয়ার ফলে চুল রুক্ষ ও শুষ্ক হয়ে যায়। নারিকেল তেল ব্যবহারে চুল নরম, কোমল ও রেশমি থাকে।
  •  নারিকেল তেলের মিডিয়াম ফ্যাটি এসিড, লরিক এসিড ও ক্যাপ্রিক এসিডে রয়েছে শক্তিশালী এন্টিভাইরাল, এন্টিমাইক্রোবিয়াল ও এন্টিফাঙ্গাল বৈশিষ্ট্য। তাই মাথার ত্বকে লুকিয়ে থাকা যে কোনো ধরনের ফাঙ্গাস, ভাইরাস বা ব্যাকটেরিয়া নষ্ট করতে নারিকেল তেল অত্যন্ত কার্যকর।

প্রাকৃতিক বিকল্প

  • খুশকি দূর করার শ্যাম্পু বারবার ব্যবহার করলে খুশকি পুরোপুরি যায়ই না বরং মাঝে মাঝে এর থেকে আরো খারাপ অবস্থা তৈরী হয়। খুশকি তৈরী হওয়ার পিছনে মূল কারণ ও শ্যাম্পু বের করতে পারে না।
  • ছত্রাকজনিত সমস্যা বা মাথার ত্বকের শুষ্কভাব দূর করতে নারিকেল তেল সবচেয়ে কার্যকর।
  • বাজারে যেসব শ্যাম্পু পাওয়া যায় তার বেশির ভাগেই রয়েছে ক্ষতিকর রাসায়নিক পদার্থ যেমন প্যারাবেনস, প্রোপাইলিন গাইকল, পলিইথিলিন গাইকল, সোডিয়াম লরেল সালফেট ইত্যাদি।
  • খুশকি দূর করার শ্যাম্পুগুলো আরো খারাপ কারণ এতে রয়েছে এমোনিয়াম লরেথ সালফেট, ম্যাগনেসিয়াম এলুমিনিয়াম সিলিকেট এবং সেলেনিয়াম সালফাইড।

বেশিরভাগ সময়ই এই ধরনের পণ্যগুলি ব্যবহারে কোনো উন্নতি দেখা দেয় না। দিনশেষে আপনার লক্ষ্য হলো মাথার ত্বককে স্বাস্থ্যকর, আর্দ্রযুক্ত, ফাঙ্গাস এবং খুশকি মুক্ত রাখা। নারিকেল তেল ব্যবহারে খুশকি হয়তো রাতারাতি দূর হবে না, তবে এক সপ্তাহ বা দু সপ্তাহের ভেতরেই সাধারণত ভালো ফলাফল দেখা যায়।

রেফারেন্স:

https://www.leaf.tv/4103308/how-to-use-coconut-oil-for-your-scalp/

POST A COMMENT