a
Sorry, no posts matched your criteria.
My Bookmarks
  • No bookmark found
Image Alt
 • ত্বকের যত্ন  • এই বসন্তে আপনার ত্বকের যত্নে মেনে চলুন সেরা কিছু টিপস
skincare tips for spring

এই বসন্তে আপনার ত্বকের যত্নে মেনে চলুন সেরা কিছু টিপস

Bookmark CFL(0)
  • বসন্ত থেকে শীতের ক্রান্তিকাল আপনার ত্বকে হাজারো সমস্যা উদ্রেক করতে পারে।
  • দিনের বেলা বাড়ির বাইরে গেলে সর্বদা এসপিএফ ৩০+ সানস্ক্রিন পরিধান করুন।
  • ত্বকের মৃত কোষ ঝড়িয়ে ফেলে নতুন স্তর উন্মোচন করতে সপ্তাহে দুই থেকে তিনবার এক্সফোলিয়েট করুন।

ঋতুরাজ বসন্ত আমাদের প্রকৃতিকে পুনরুজ্জীবিত করে। সবকিছু নতুন ও সবুজ দেখায় এবং প্রকৃতি সজ্জিত হয় উদযাপনের আমেজে। তাহলে আপনার ত্বক কেন পিছিয়ে থাকবে?

এই মৌসুমে আপনার ত্বক বাড়তি কিছু যত্নের দাবি করতেই পারে। কিন্তু কেন? কারণ আবহাওয়া বদলের এই সময়টা আপনার ত্বকের জন্য হতে পারে বেশ কঠোর। 

বর্ধিত আর্দ্রতার বিরুদ্ধে আপনার ত্বককে সেভাবে প্রস্তুত করা বাঞ্ছনীয়। কিছুটা বাড়তি যত্ন নিয়ে শীতের নির্জীবতা কাঁটিয়ে, এই বসন্তে আপনার ত্বককে পুনরায় প্রাণবন্ত করে তুলুন। সুতরাং, যদি আপনি কিছু বসন্ত সৌন্দর্যের টিপস সম্পর্কে জানতে আগ্রহী হন, তবে আমাদের সাথে থাকুন।

 

বসন্তে ত্বকের যত্নের বিশেষ টিপস

১. সানস্ক্রিন ব্যবহার করুন: এটি সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ত্বকের যত্নের টিপস। দিনের বেলা বাইরে বেরোনোর আগে আপনার মুখ, ঘাড় এবং শরীরে পরিমাণমত সানস্ক্রিন লাগাতে ভুলবেন না। বসন্ত যখন একটু একটু করে প্রকৃতিতে উঁকি দিতে থাকে, সূর্যের তাপ তখন তুলনামূলক বাড়তে থাকে। সূর্যের অতি বেগুনি রশ্মি থেকে আপনার ত্বককে রক্ষা করতে সর্বদা এসপিএফ ৩0+ সানস্ক্রিন ব্যবহার করুন। তা না হলে, অকালেই আপনার ত্বকে বয়সের ছাপ, ফাইন লাইন্স এবং পিগমেনটেশন দেখা দিতে পারে। 

২. এক্সফোলিয়েট করুন: মৃদু এক্সফোলিয়েশনের মাধ্যমে আপনার ত্বক হয়ে উঠবে পুনঃসঞ্জীবিত। আপনি যখন এক্সফোলিয়েট করেন, তখন আপনার ত্বকের মৃত এবং পুরাতন কোষগুলো ঝরে পড়ে। এতে করে, ত্বকের নতুন স্তর দৃশ্যমান হয় এবং আপনার ত্বক প্রাকৃতিক ভাবে দ্যুতিময় হয়। তবে অতিরিক্ত এক্সফোলিয়েশন আপনার ত্বকের ক্ষতির কারণ হয়ে দাড়াতে পারে। তাই, সপ্তাহে ২ থেকে ৩ বারের বেশি এক্সফোলিয়েট করবেন না।

৩. একটি হালকা ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করুন: আপনার ঘন ময়শ্চারাইজিং ক্রিমটি শীতের জন্য রেখে দিন। এই মৌসুমে কোমল ত্বক পেতে হালকা এবং হাইড্রেটিং ময়েশ্চারাইজিং লোশন ব্যবহার করুন। তা না হলে, আপনার ত্বক অতিরিক্ত তৈলাক্ত দেখাবে। তবে ভাবছেন যে ময়েশ্চারাইজার এড়িয়ে গেলে আপনার ত্বক অতিরিক্ত তেল উৎপাদন করবে না? একদমই ভুল। বরং ময়েশ্চারাইজারের অভাবে আপনার ত্বক অতিরিক্ত তেল উৎপাদনে বাধ্য হবে। 

৪. সুষম খাদ্যাভ্যাস করুন: আপনার ডায়েটে কিছু টাটকা ফল এবং শাকসবজি অন্তর্ভুক্ত না করলে বসন্তের ত্বকের যত্ন অসম্পূর্ণ থেকে যাবে। প্রচুর পরিমাণে পানি পান করার পাশাপাশি, ফল এবং শাকসবজি আপনার শরীরে পরিমিত পানি সঞ্চার করতে পারে। এটি আপনার ত্বক টানটান করবে। ফলস্বরূপ, বার্ধক্য-জনিত লক্ষণগুলোর  বিরুদ্ধে লড়াই করার জন্য আপনার ত্বক যথেষ্ট শক্তিশালী হবে। 

৫. চোখের ক্ষেত্রের যত্ন নিন: চোখের চারপাশের ত্বক সবচেয়ে পাতলা হয়ে থাকে। উষ্ণ  আবহাওয়া ত্বকের এসকল অংশের জন্য আরও তীব্র হতে পারে। সুতরাং, বাইরে যখন রোদ থাকে, সে সময় বের হতে হলে, সানগ্লাস পরুন। আপনার প্রতিদিনের স্কিনকেয়ার রুটিনে আই ক্রিম বা আই জেলও অন্তর্ভুক্ত করতে পারেন।

 

৬. অ্যান্টিঅক্সিডেন্টস: বেশি সময়ের জন্য তারুণ্য ধরে রাখতে চান? তাহলে একটি অ্যান্টিঅক্সিডেন্টস সমৃদ্ধ সিরাম ব্যবহার করুন। এটি ফ্রি র‍্যাডিকাল উৎপাদন বাধাগ্রস্থ করে আপনাকে তারুণ্যদীপ্ত ও স্বাস্থ্যকর ত্বকের অধিকারী করে।

 

৭.ব্যায়াম করুন: ব্যায়াম করার মাধ্যমে আপনি শুধুমাত্র সুঠাম দেহের অধিকারী হন না, এতে করে আপনার ত্বকও আরও লাবণ্যময়ী হয়। ভাবছেন কীভাবে চেহারার পরামর্শের মাঝে এটি ঠাঁই করে নিল? ব্যায়াম রক্ত সঞ্চালন বৃদ্ধি করে ত্বককে আরও সুন্দর করে তোলে। এছাড়াও ঘাম ঝরানোর মাধ্যমে আপনার আপনার লোমকূপগুলো প্রশমিত হয়। কিন্তু জিমে যাওয়া যদি আপনার জন্য দুঃসাধ্য হয়, আপনি ঘরে বসেও ব্যায়াম করতে পারেন।

 

৮. ঠোঁটের প্রতি মনোযোগ দিন: শীতকাল আপনার ঠোঁটকে শুষ্ক করে তোলে। তাই, বসন্তই উপযুক্ত সময় আপনার ঠোঁটকে আরও উজ্জ্বল ও স্বাস্থ্যকর করার । তাই সবসময় এসপিএফ-সমৃদ্ধ চ্যাপস্টিক ব্যবহার করুন। তাহলে, আপনি শীঘ্রই যথেষ্ট পরিবর্তন লক্ষ্য করবেন।

 

৯. রাতে রেটিনল ব্যবহার করুন: মুখের জন্য সর্বাধিক প্রয়োজনীয় সৌন্দর্য পরামর্শগুলোর একটি হল রেটিনল ব্যবহার করা, বিশেষত, যদি আপনার ত্বকে কিছু সমস্যা থাকে। রেটিনল ব্যবহারে মৃত কোষ নির্মূল হয়ে নতুন কোষের সঞ্চার হয়। কিন্তু যেহেতু নতুন ত্বকের স্তরটি  তুলনামূলক ভাবে পাতলা হয়, রোদে পুড়ে যাওয়ার আশঙ্কাও বেশি থাকে।  সুতরাং, রেটিনল ব্যবহার এর জন্য রাতের সময়টি বেছে নিন। অন্যথায়, সরাসরি সূর্যের তাপের সংস্পর্শ আপনার জন্য হতে পারে বিপর্যয়কর। 

 

১০. ঘরোয়া ফেসপ্যাক ব্যবহার করুন: ত্বকের যত্নে কিছু প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের টিপসও অনুসরণ করা উচিত। ভিটামিন সি ত্বকের কোলাজেন উৎপাদন বাড়ায়। সুতরাং, লেবু, কমলার জুসযুক্ত কিছু ঘরোয়া ফেস মাস্ক ব্যবহার করুন। ১ চামচ কমলার খোসা পেস্ট করে তাতে সমপরিমাণ অ্যালোভেরা মিশিয়ে নিতে পারেন। প্যাকটি আরও কার্যকরী করতে, আধা চামচ লেবুর রস মিশিয়ে মুখে লাগিয়ে নিন। প্যাকটি শুকিয়ে গেলে ঠাণ্ডা পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন। 

 

১১. কম পণ্য ব্যবহার করুন: শীতের প্রাদুর্ভাব কমার সাথে সাথে মেকআপ সেটিং নিয়ে দুশ্চিন্তাও বেড়ে যায়। উষ্ণ দিনগুলোতে, মুখের জন্য অন্যতম সেরা প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের টিপস হল চেহারায় ব্যবহার্য পণ্যের সংখ্যা কমিয়ে আনা। অন্যথায়, সেগুলো আপনার মুখের লোমকূপগুলোকে আটকিয়ে ফেলবে। তাছাড়া অতিরিক্ত মেকআপ বোঝা গেলে আপনাকে সুন্দরও দেখাবেনা। তাই, যতটা সম্ভব কম মেকআপ পরিধান করুন।

 

শীত থেকে বসন্তে অগ্রগমনের জন্য নিজের ত্বককে ভালভাবে প্রস্তুত করা অপরিহার্য। তাই এসময় আরও দীপ্তিময়ি হয়ে উঠতে ত্বকের যত্নের এই টিপসগুলো অনুসরণ করুন। এছাড়াও, কোনও বিশেষ অনুষ্ঠানের জন্য আপনার ত্বককে প্রস্তুত করতে হলে প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের টিপসগুলো মেনে চলতে ভুলবেন না। টিপস গুলো আপনার ত্বকের টেক্সচার সুন্দর করে অচিরেই আপনাকে স্বাস্থ্যকর ত্বকের অধিকারি করবে!

 

সচরাচর জিজ্ঞাস্য প্রশ্নসমুহ

১. ত্বকের জন্য সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ পরামর্শগুলো কী কী?

  • ত্বকের যত্নের রুটিনে অবশ্যই ক্লিঞ্জিং, টোনিং এবং ময়শ্চারাইজিং থাকতে হবে। তাছাড়া, আপনার ত্বকের যত্নে বিভিন্ন সিরাম, আই ক্রিম, রেটিনলও অন্তর্ভুক্ত করতে পারেন। 

২. আমার স্কিনকেয়ার রুটিনটি কোথা থেকে শুরু করব?

  • হালকা ক্লিনজার দিয়ে মুখ ধুয়ে আপনার স্কিনকেয়ারের রুটিনটি সর্বদা শুরু করা উচিত। একটি পরিষ্কার মুখ বাকি সকল স্কিনকেয়ার পণ্য আরও ভালভাবে শোষণ করবে।

৩. কীভাবে সংবেদনশীল ত্বকের যত্ন নিবেন?

  • সংবেদনশীল ত্বকের ক্ষেত্রে স্কিনকেয়ার প্রোডাক্টস ও এক্সফোলিয়েটর বাছাই করতে বিশেষ ভাবে সচেতন হতে হবে। যেসকল উপাদান আপনার ত্বকের জন্য প্রখর হতে পারে, সে ধরনের পণ্য এড়িয়ে চলুন। দিনে দুবার মুখ ধুয়ে হাইড্রেটিং ময়েশ্চারাইজার লাগিয়ে নিন। এছাড়াও সংবেদনশীল ত্বকের জন্য বোনাস স্কিনকেয়ার টিপটি হল যে ময়লা বালিশে কখনও ঘুমানো যাবেনা।  কারণ এর মাধ্যমে আপনার মুখে জীবাণু এবং ব্যাকটেরিয়া স্থানান্তর হতে পারে।

৪. রাতে আপনার ত্বকের জন্য কোন টিপস গুলো অনুসরণ করা উচিত?

  • মুখে মেকআপ নিয়ে কখনই ঘুমোতে যাওয়া উচিত নয়। এটি মুখের জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ সৌন্দর্যের টিপস। তাই, প্রতি রাতে আপনি সিটিএম রুটিন অনুসরণ করতে পারেন। প্রথমে, আপনার মুখ পরিষ্কার করুন। তারপরে একটু তুলোতে কিছু টোনার নিয়ে আলতো ভাবে মুখে লাগিয়ে নিন। অবশেষে আপনার ত্বককে ময়শ্চারাইজ করুন। আপনার চোখের নিচে যদি কালি থাকে, তবে আপনি আই ক্রিম বা জেলও প্রয়োগ করতে পারেন।

 

৫. শুষ্ক আবহাওয়ায় আপনি কীভাবে আপনার ত্বকের যত্ন নেবেন?

  • প্রথমে অবশ্যই, আপনার মুখটি আপনার ত্বকের জন্য উপযোগী একটি ক্লিঞ্জার দিয়ে ধুয়ে নিন। তারপরে আপনি টোনার প্রয়োগ করতে পারেন। এরপর, একটি ময়েশ্চারাইজিং সিরাম লাগান। অবশেষে, একটি ভালো ময়শ্চারাইজার লাগিয়ে আপনার স্কিনকেয়ার রীতিটি শেষ করুন। এছাড়াও, নিয়মিত এক্সফোলিয়েট করতে এবং ফেস প্যাক ব্যবহার করতে ভুলবেন না।

তথ্যসূত্র:

 

https://www.healthyessentials.com/beauty-solutions/sping-skin-care-tips

https://seriouslyfab.com/blogs/news/12-dermatologist-approved-tips-for-the-ultimate-spring-skincare-routine

https://yeouth.com/blogs/news/spring-skincare-tips

https://www.wellandgood.com/antioxidants-for-skin-benefits/#:~:text=%E2%80%9CAntioxidants%20protect%20the%20skin%20by,and%20wrinkles%2C%E2%80%9D%20explains%20Dr.