a
Sorry, no posts matched your criteria.
My Bookmarks
  • No bookmark found
Image Alt
 • মুখের যত্ন  • কোমল ঠোঁটের সুরক্ষায় নারিকেল তেল

কোমল ঠোঁটের সুরক্ষায় নারিকেল তেল

Bookmark CFL(0)
  • শীতকালে ফাটা ঠোঁটের জন্য চাই বাড়তি যত্ন।
  • নারিকেল তেলে রয়েছে ভিটামিন ই যা ফাটা ঠোঁটের জন্য দারুণ উপকারি।
  • নারিকেল তেল ঠোঁটের ফেটে যাওয়া টিস্যু নিরাময়ে সাহায্য করে ফলে ঠোঁট প্রাকৃতিকভাবে নরম ও কোমল হয়ে ওঠে।

 

শীতকাল মানেই নানারকম সমস্যা। কাজে বের হতেও মন চায়না, ঠান্ডা পানিতে গোসল করতেও ইচ্ছে করে না আর সবচেয়ে বড় সমস্যা দেখা দেয় পরিমিত পরিমাণ পানি পান করার ক্ষেত্রে। পানি কম পান করার কারণে শীতে শরীরে বেশ কিছু সমস্যা দেখা দেয়, যেমন নিস্তেজ অনুভব করা, শরীরে খিল দেয়া, তবে অন্যতম বড় সমস্যা হলো ত্বকের শুষ্কতা। আর তাই শীতকালের জন্য চাই বিশেষ স্কিন কেয়ার রুটিন। বিশেষ করে শীতে ঠোঁট ফাটা সমস্যার জন্য চাই একটু বাড়তি যত্ন। প্রকৃতির কাছে সব সমস্যারই সমাধান আছে। শীতে ঠোঁট ফাটা সমস্যা দূর করার জন্য নারিকেল তেল হতে পারে প্রাকৃতিকভাবে সেরা সমাধান। নারিকেল তেল ঠোঁটের ফাটা ভাব দূর করে ঠোঁটকে করে নরম ও কোমল।

 

শুষ্ক ঠোঁটের যত্নে নারিকেল তেলঃ

 

যে কোনো বয়সের নারীদের জন্যেই শুষ্ক ঠোঁট কিন্তু কাম্য নয়। কারণ ম্যাট হোক বা লিকুইড লিপস্টিক, শুষ্ক ঠোঁটে মাখলেই খসখসে অনুভুত হতে থাকে। আর লিপস্টিক লাগানোর পর ঠোঁটে ফাটাফাটা দাগ হয়ে থাকলে তা দেখতে খুবই বাজে দেখায়। এছাড়া এরকম ফাটা ঠোঁট নিয়ে হাসতেও কষ্ট হয়, ফলে আপনার মিলিয়ন ডলারের হাসিটি কিন্তু ফাটা ঠোঁটের কারণে ঢাকা পড়ছে। কাজেই শীতে প্রতিদিনের স্কিন কেয়ার রুটিনে শুষ্ক ঠোঁটের যত্ন কিন্তু প্রথম দিকেই রাখতে হবে।

 

১। পুষ্টিগুনে ভরপুরঃ

নারিকেল তেল শুষ্ক ত্বকের জন্য দারুণ কার্যকর। আর শীতকালে এটি আরো ভালোভাবে কাজ করে কারণ এর ভিটামিন ই সূর্যের ক্ষতিকর ইউভি রশ্মি থেকে ত্বককে রক্ষা করে। আর তাই এটি শুষ্ক ও ফাটা ঠোঁটের যত্নেও উপকারি। ত্বকের যত্নে নারিকেল তেলের সুবিধা নিয়ে আলোচনা শুরু করলে এর তালিকা নীলনদের চেয়েও দীর্ঘ হবে। নারিকেল তেল একই সাথে ত্বকে ময়েশ্চারাইজার হিসেবে কাজ করে, সানস্ক্রিন হিসেবে কাজ করে ও ত্বকে নিরাময়কারী প্রাকৃতিক উপাদান হিসেবেও উপকার করে। সারাদিনের কঠোর পরিশ্রম ও ক্লান্তি দূর করতে শরীরে মাসাজ বেশ আরামদায়ক। এ সময় হালকা গরম পানি দিয়ে গোসলের পর নারিকেল তেলের মাসাজ আপনার ক্লান্তি নিমেষেই দূর করে দিতে পারে। ত্বকে পুষ্টি যোগাতেও নারিকেল তেলের জুড়ি নেই।

 

২। সেরা ঘরোয়া পদ্ধতিঃ

বিভিন্ন উপায়ে নারিকেল তেল ত্বক পরিচর্যায় ব্যবহার করা যেতে পারে। আজ আমরা জানবো ঠোঁটের শুষ্কতা দূর করতে ঘরে বসেই নারিকেল তেল কীভাবে ব্যবহার করা যেতে পারে। এক্ষেত্রে কার্টনি কার্দাশিয়ান কি উপায়ে ঠোঁটের যত্ন নেন, চলুন সেটা জেনে নিই। কার্টনি কার্দাশিয়ান রোজ সকালে নারিকেল তেল ও চিনি একসাথে মিশিয়ে স্ক্রাব তৈরি করে ঠোঁটে ব্যবহার করেন। যতক্ষণ পর্যন্ত তার মর্নিং স্কিন কেয়ার রুটিন চলতে থাকে, স্ক্রাবটিও তার ঠোঁটে কাজ করতে থাকে। তিনি POOSH-কে জানিয়েছেন যে নারিকেল তেল ঠোঁটের যত্নে আসলেই বেশ কার্যকর এবং তাই তিনি তার শীতকালীন ত্বকের যত্নে নিয়মিত এটি ব্যবহার করেন। ঘরোয়া পদ্ধতিতে নারিকেল তেল ও লেবুর রস একসাথে মিশিয়ে ঠোঁটে ও চুলে ব্যবহার করলেও কিন্তু কার্যকর ফলাফল পাওয়া যায়।

 

নারিকেল তেল ব্যবহারের উপকারিতাঃ

 

নারিকেল তেল নিয়মিত ঠোঁটের যত্নে ব্যবহার করলে ঠোঁট প্রাকৃতিকভাবেক দারুণ সুন্দর ও আকর্ষণীয় হয়ে ওঠে। ফলে তখন আপনি চাইলে লিপস্টিক সব সময় ব্যবহার নাও করতে পারেন। কারণ নারিকেল তেল ব্যবহার ঠোঁটে একটা প্রাকৃতিক চকচকে ভাব বজায় থাকে এবং ঠোঁটের আকৃতিও অনেক সুগঠিত হয়ে ওঠে। তাছাড়া নিয়মিত এটি ব্যবহারে ঠোঁট ফাটার সমস্যাও দূর হয়। এর উপকারিতা মোটামুটি যারাই ব্যবহার করেছেন সবাই এক বাক্যে স্বীকার করেন। চলুন এখন জেনে নিই নারিকেল তেলের কী কী উপকারিতা রয়েছে।

 

১। নরম ঠোঁটঃ

নারিকেল তেল ব্যবহার ঠোঁটে একটা প্রাকৃতিক চকচকে ভাব বজায় থাকে এবং ঠোঁটের আকৃতিও অনেক সুগঠিত হয়ে ওঠে। তাছাড়া নিয়মিত এটি ব্যবহারে ঠোঁট ফাটার সমস্যাও দূর হয়। এর উপকারিতা মোটামুটি যারাই ব্যবহার করেছেন সবাই এক বাক্যে স্বীকার করেন।

 

২। হাইড্রেটঃ

শুষ্ক ঠোঁটের যত্নে আরো অন্যান্য উপায়ও আছে তবে ত্বক পরিচর্যায় প্রাকৃতিক উপাদানই ব্যবহার করা উচিত। আর সেই হিসেবে নারিকেল তেল কিন্তু একদম প্রাকৃতিক উপাদান, কোনো রকম রাসায়নিক পদার্থের উপস্থিতি ছাড়াই এর সাহায্যে আপনার ঠোঁটের যত্ন আপনি নিতে পারেন।  প্রথমত, শীতে সাধারণত মানুষ কম পানি পান করে ফলে ত্বক ও ঠোঁট শুষ্ক হয়ে ওঠে। নারিকেল তেল ঠোঁটের ফেটে যাওয়া টিস্যু নিরাময়ে সাহায্য করে ফলে ঠোঁট প্রাকৃতিকভাবে নরম ও কোমল হয়ে ওঠে।

 

৩। ত্বকের যত্নেঃ

অনেকে আবার উপকারিতার জন্য সারাদিন নারিকেল তেল মেখে বসে থাকেন। এটাও কিন্তু উচিত না। নারিকেল তেল লম্বা সময় ত্বকে মেখে থাকলে পোরস ব্লক হয়ে অ্যাকনে হয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকে। তাই খুব অল্প পরিমাণ নারিকেল তেল রাতে শোবার আগে এবং সকালে মেক-আপের আগে ব্যবহার করুন। সকালে ঘুম ভেঙে রাতে ব্যবহার করা নারিকেল তেল ধুয়ে ফেলার পর গোলাপজল ব্যবহার করতে পারেন, এতে করে ত্বক আরো বেশি সুন্দর হয়ে উঠবে।

 

ডার্মাটোলোজিস্টদের মতে নারিকেল তেল শুষ্ক ঠোঁটের জন্য উপকারি কারণ এতে রয়েছে ভিটামিন ই ও অন্যান্য পুষ্টি উপাদান। এটি ত্বককে নিরাময় করে, সুরক্ষা দেয় ও ত্বকের প্রশান্তি ফিরিয়ে আনে। তাই শীতে ঠোঁটের যত্নে নারিকেল তেল অনন্য একটি উপাদান।

 

 

সাধারণ প্রশ্ন:

 

১। প্রচন্ড শুষ্ক ঠোঁটের যত্নে আমি কী করতে পারি?

ময়েশ্চারাইজ এবং কেবলমাত্র ময়েশ্চারাইজ। নারিকেল তেল শীতকালে ঠোঁটের যত্নে দারুণ উপকারি। প্রতিদিন সকালে নারিকেল তেল ঠোঁটে ব্যবহার করলে ঠোঁটের শুষ্কতা দূর হয়ে ঠোঁট সুন্দর হয়ে উঠবে।

 

২। নারিকেল তেল কি ঠোঁটকে গোলাপি করে তোলে?

নারিকেল তেল ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধি করতে সহায়তা করে তাই ঠোঁটে গোলাপি আভা আনতেও সক্ষম। এটি ত্বকে পানির পরিমাণ বজায় রাখে এবং ঠোঁটের গোলাপি আভা ফিরিয়ে আনে।

 

৩। প্রাকৃতিকভাবে আমার ঠোঁটকে কীভাবে ময়েশ্চারাইজ করতে পারি?

আপনি কেমিক্যাল ফ্রি উপাদান যেমন নারিকেল তেল ব্যবহার করতে পারেন। এটি প্রাকৃতিক নিরাময়কারী হিসেবে পরিচিত তাই খুব সহজেই ঠোঁট ফাটা সারিয়ে তুলতে পারে।

 

৪। নারিকেল তেল ঠোঁটে ব্যবহার করলে কী হয়?

শীতকালীন স্কিন কেয়ার রুটিনে ঠোঁটের যত্নে নারিকেল তেল খুবই জরুরি। এটি ঠোঁটে পুষ্টি যোগায় ও নরম করে তোলে।

POST A COMMENT